• বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০৯:২৩ পূর্বাহ্ন
  • Bengali Bengali English English

মারামারির মামলায় এক পরিবারের ৪ জনের বাড়িতেই কারাগার

অন্যায়ের প্রতিবাদ / ৩২১ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশকাল ► বুধবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২০

সাতক্ষীরায় দুই প্রতিবেশীর মধ্যে চলাচলের রাস্তা নিয়ে মারামারির ঘটনায় স্বামী-স্ত্রীসহ একই পরিবারের চারজনকে তিন মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তবে আসামিদের কারাগারে না পাঠিয়ে প্রবেশন আইনে আদালত তাদেরকে বাড়ি পাঠিয়েছেন কয়েকটি শর্তে।

সাতক্ষীরা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ইয়াসমিন নাহার মঙ্গলবার এই রায় দেন।

শর্তের মধ্যে রয়েছে মাদক বিরোধী প্রচার, প্রত্যেককে ২০টি করে গাছ লাগানো ও তার পরিচর্যা, বাল্যবিবাহ রোধে প্রচারণা, সবার সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখা এবং কারও সাথে কোনো ঝগড়া না করা। তিন মাস পর এ শর্ত যথাযথভাবে পালিত হয়েছে কিনা সে সংক্রান্ত রিপোর্ট দেয়ারও নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। আদালত আরও জানিয়েছেন এই শর্তে কোন বিঘ্ন ঘটালে তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হবে।

সাজাপ্রাপ্ত হয়েও বাড়িতে থাকা আসামিরা হলেন আশাশুনি উপজেলার মহিষাডাঙা গ্রামের গৌতম গাইন, মমতা গাইন, লতিকা মণ্ডল ও উর্মিলা গাইন।

মামলার বাদী প্রতিবেশী নমিতা মণ্ডল উল্লেখ করেন, দুই পরিবারের মধ্যে যাতায়াতের পথ নিয়ে বিরোধ চলছিল। এরই এক পর্যায়ে তার মেয়ে বন্যাকে গৌতম ও তার পরিবারের লোকজন মারধর করে। এ ঘটনায় তিনি আশাশুনি থানায় মামলা করেন ২০১৬ সালে। তদন্ত শেষে আশাশুনি থানা পুলিশ এ মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয়।

সরকার পক্ষে এ মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট পংকজ মজুমদার। আসামিপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট একেএম রেজায়ানুল্লাহ সবুজ।


এই বিভাগের আরো সংবাদ

আমাদের ফেসবুক পেজ

Facebook Pagelike Widget