• সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ১০:১৫ পূর্বাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
সংবাদ শিরোনাম
আমীরগঞ্জে সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত ব্যবসায়ী পান্না নারী উত্ত্যক্তকারী সোহাগের মুক্তির দাবীতে থানা ঘেরাও! নির্বাচন বানচাল করতে বিএনপি প্রার্থী হান্নানের নাটক বাটার গলিতে বৃদ্ধার সম্পদ দখলের পায়তারা সন্ত্রাসী নুরী বাহিনীর ইউনিভার্সিটি অব গ্লোবাল ভিলেজ’র চেয়ারম্যান ইমরানের দুর্নীতি ফাঁস বিএম কলেজ ছাত্রদলের আহবায়ক বাবুকে মহানগর ছাত্রদলের সংবর্ধনা সময়ের লড়াকু সাংবাদিক এম. লোকমান হোসাঈন এর জন্মদিন পালিত ‘জিম্মি’ সাংবাদিকদের পাশে থাকবে অনলাইন প্রেস ইউনিটি কারাগারে আসামীকে মারধর, স্বীকার করেলেন জেল সুপার বরিশাল কারাগারে ফাঁসির আসামীকে জেলারের অমানবিক নির্যাতন

বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ আইন কঠোর করা হোক

অন্যায়ের প্রতিবাদ / ১১৩ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশকাল ► শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০
বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ আইন কঠোর করা হোক

মো: রাকিব হাওলাদার: আমাদের সমাজ যে, কতটা পিছিয়ে সেটা সেদিন অটো ড্রাইভারের পাশে না বসলে হয়তো জানা হ’ত না। সেদিন লঞ্চঘাট থেকে রুপাতলী যাচ্ছিলাম। হঠাৎ আমার পাশের সিটের ড্রাইভারের ফোনটা বেজে উঠলো। ড্রাইভার হ্যালো বলতেই ফোনের ওপার থেকে একজন বলো ভাই আপনার মেয়েকে তো ছেলে পক্ষর পছন্দ হইছে। ড্রাইভার বলো, আমার মেয়ের বয়স তো অনেক কম। আমিও মেয়েটাকে বিয়ে দিতে চাই চারিদিকের যা অবস্থা। তাতে মেয়েটা আগলে রাখাটাই বেশ কঠিন হয়ে পড়েছে।

নানান মানুষের মুখে নানান কথা শুনি। মেয়েটাকে বিয়ে দিতে পারলেই আমার সব চিন্তা শেষ হয়ে যায়। ড্রাইবারের কাছে থাকায় এবং ফোনের সাউন্ড বেশ তাকায় আমার ফোনের ওপারের কথাগুলো শুনতে বেশি অসুবিধা হলো না। ফোনের ওপার থেকে কেউ একজন বলছিল যে, ভাই আপনি চিন্তা করবেন না। আপনার মেয়ে ঐ ঘরে বেশ সুখেই থাকবে!! ড্রাইভাই কালো মুখ নিয়ে ফোনের উত্তর দিলে যে, সে এই বিয়েতে রাজি।

আমাদের সমাজে এমন হাজারো মা-বাবা আছে যারা নিজেদের সম্মান রক্ষার কারণে তাদের মেয়েদের বয়স হওয়ার আগেই বিয়ে দিয়ে দেয়। আমরা কথায় কথায় বলি যে, আমরা অনেক আধুনিক কিন্তু এখনো আমাদের চিন্তা চেতনা অনেক সনাতন। তার বড় প্রমান সরকারের বাল্যবিবাহ নিয়ে এত আইন থাকার ওপর বাল্যবিবাহের সংখ্যা কমছে না। সরকারের আইন আছে কিন্তু সেটি সঠিকভাবে প্রয়োগ হচ্ছে না।

কিছু ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে যে, এলাকা বা মহল্লার প্রভাবশালী ব্যক্তিবর্গরাও বাল্যবিবাহের পক্ষে মতামত দেয়। তার অন্যতম কারন হচ্ছে, সমাজে ইভটিজিং, ধর্ষন বেড়ে যাওয়া। তাই বাল্যবিবাহ মুক্ত সমাজ গড়তে হলে। সমাজ থেকে ইভটিজিং, ধর্ষন বন্ধে সমাজিক সচেতনতা বৃদ্ধির পাশাপাশি কঠোর আইনের প্রয়োগের দরকার।


এই বিভাগের আরো সংবাদ

আমাদের ফেসবুক পেজ

Facebook Pagelike Widget