• বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
সংবাদ শিরোনাম
আমীরগঞ্জে সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত ব্যবসায়ী পান্না নারী উত্ত্যক্তকারী সোহাগের মুক্তির দাবীতে থানা ঘেরাও! নির্বাচন বানচাল করতে বিএনপি প্রার্থী হান্নানের নাটক বাটার গলিতে বৃদ্ধার সম্পদ দখলের পায়তারা সন্ত্রাসী নুরী বাহিনীর ইউনিভার্সিটি অব গ্লোবাল ভিলেজ’র চেয়ারম্যান ইমরানের দুর্নীতি ফাঁস বিএম কলেজ ছাত্রদলের আহবায়ক বাবুকে মহানগর ছাত্রদলের সংবর্ধনা সময়ের লড়াকু সাংবাদিক এম. লোকমান হোসাঈন এর জন্মদিন পালিত ‘জিম্মি’ সাংবাদিকদের পাশে থাকবে অনলাইন প্রেস ইউনিটি কারাগারে আসামীকে মারধর, স্বীকার করেলেন জেল সুপার বরিশাল কারাগারে ফাঁসির আসামীকে জেলারের অমানবিক নির্যাতন

নির্বাচন বানচাল করতে বিএনপি প্রার্থী হান্নানের নাটক

অন্যায়ের প্রতিবাদ / ৬৪ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশকাল ► মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০২১
নির্বাচন বানচাল করতে বিএনপি প্রার্থী হান্নানের নাটক

এম. লোকমান হোসাঈন: সম্প্রতি পৌরসভার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সাবেক এমপি কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা জহির উদ্দিন স্বপনের বাসভবনে হামলার ঘটনা ঘটেছে। বিএনপির দাবী, গৌরনদীতে পৌরসভার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বরিশালস্থ বিএনপি নেতা জহির উদ্দিন স্বপনের বাসভবনে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা হামলা করেছে। তবে এ ঘটনার কোন সত্যতা প্রমাণ করতে পারেননি বিএনপির প্রার্থী জহির সাজ্জাদ হান্নান এবং সাবেক এমপি জহির উদ্দিন স্বপনের ব্যক্তিগত সহকারী জাবের হোসেন জুয়েল।

অনুসন্ধান করে দেখা যায়, ঘটনাস্থলে সিসিটিভি ক্যামেরা থাকার পরেও হামলাকারীদের ফুটেজ ক্যামেরায় ধারণ করা হয়নি। যা রীতিমত অস্বাভাবিক। এ নিয়ে বরিশালসহ সারাদেশে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। জানা যায়, গত রোববার দুপুর ২ টার দিকে কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা জহির উদ্দিন স্বপনের বরিশালস্থ নগরীর ভাটিখানা এলাকার সরিকল লজ্বে হামলার ঘটনা ঘটে। হামলার ঘটনাস্থলে থাকা সিসি টিভি ক্যামেরার ফুটেজে ধারণ করা সম্ভব হয়নি বলে দাবী বিএনপির মেয়র প্রার্থী হান্নান ও জুয়েল।

এদিকে প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয়রা বলছেন, রোববার দুপুর ২ টায় সরিকল লজে গৌরনদী পৌরসভার নির্বাচনী বিষয় নিয়ে বিএনপির নেতা ও সাবেক এমপি জহির উদ্দিন স্বপনের সাথে বিএনপির মেয়র প্রার্থী জহির সাজ্জাদ হান্নান এবং দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে মিটিং চলছিল। এসময়ে নিজেদের মধ্যে কথা কাটাকাটি এবং বাক-বিতণ্ডা হয়। এক পর্যায় নেতাকর্মীরা নিজেরাই চেয়ার ছোড়াছুড়ি করে। পরক্ষণেই সম্পূর্ণ ঘটনার দায় ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের উপর চাপানোর নাটক করে মিডিয়ার কাছে বক্তব্য প্রদান করেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী হান্নান ও সাবেক এমপি স্বপনসহ বিএনপির নেতাকর্মীরা।


►► আরো দেখুন: পদ্মা সেতু নিয়ে জানা-অজানা সব প্রশ্নের উত্তর
►► আরো দেখুন: বিসিএস ক্যাডার হতে চাইল যে বইগুলো পড়তেই হবে
►► আরো দেখুন: এসআই নিয়োগের প্রস্তুতি নিন এখনই


প্রত্যক্ষদর্শীরা আরো জানান, ঘটনাস্থল সিসি টিভি ক্যামেরার আওতায়ভুক্ত ছিল। এক্ষেত্রে কেউ যদি হামলা করেন, অবশ্যই সেই ফুটেজ সিসি টিভি ক্যামেরায় সংরক্ষিত থাকবে। তবে গৌরনদীর পৌরসভার নির্বাচনী সভা নিজ নির্বাচনী এলাকায় না করে বরিশাল নগরীতে কেন করা হচ্ছে, এমন প্রশ্নের সদোত্তর দিতে পারেননি বিএনপির মেয়র প্রার্থী জহির সাজ্জাদ হান্নান শরীফ।

তিনি বলেন, রোববার দুপুর ২ টায় বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ও গৌরনদীর সাবেক এমপি জহির উদ্দিন স্বপনের বরিশালস্থ বাসভনে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে সৌজন্য স্বাক্ষাতে আসেন। এ সময় হঠাৎ ৮/১০ জন ক্ষমতাসীন দলের লোকজন এসে জহির উদ্দিন স্বপনকে লক্ষ্য করে হামলা করা করেন। এ সময় বিএনপির দলীয় নেতাকর্মীরা তাকে ঘিরে রাখেন।

সাবেক এই এমপির ব্যক্তিগত সহকারী জাবের হোসেন জুয়েল সময়ের বার্তাকে বলেন, হামলার ঘটনাস্থলে সাবেক এই এমপি উপস্থিত ছিলেন না। সিসি টিভি ক্যামেরার বিষয় জানতে চাইলে জুয়েল বলেন, ‘হামলার সময় ক্যামেরার মেমোরি ফুল ছিল।’ তবে সিসি টিভি ক্যামেরা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ক্যামেরার মেমোরি ফুল থাকলেও ঘটনাটি ক্যামেরায় থাকার কথা। বর্তমানে বাজারে যে সকল ক্যামেরা ব্যবহার হচ্ছে এসব ক্যামেরাগুলোর মেমোরি ফুল হওয়ার কোন সুযোগ না।

এদিকে আওয়ামীলীগের মেয়র প্রার্থী মো: হারিছুর রহমান সময়ের বার্তাকে বলেন, ‘নিবার্চন হচ্ছে গৌরনদী পৌরসভার, অথচ হামলার ঘটনা হচ্ছে বরিশাল নগরীতে। তাও এক বিএনপির নেতার বাসায়। এটি রহস্যজনক।’ তিনি আরো বলেন, ‘ঘটনাস্থলে থাকা সিসি টিভির ফুটেজ দেখলেই বিএনপির নেতাকর্মীদের নাটকের আসল রহস্য বের হয়ে যাবে।’ বিএনপি প্রার্থী পরাজয় বুঝতে পেরে নির্বাচন বানচাল করার জন্যই বরিশালে গিয়ে হামলার নাটক সাজিয়েছেন বলে দাবী করেন হারিছুর রহমান।


►► আরো দেখুন: পদ্মা সেতু নিয়ে জানা-অজানা সব প্রশ্নের উত্তর
►► আরো দেখুন: বিসিএস ক্যাডার হতে চাইল যে বইগুলো পড়তেই হবে
►► আরো দেখুন: এসআই নিয়োগের প্রস্তুতি নিন এখনই


বিষয়টি নিয়ে জানার জন্য বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ও সাবেক এমপি জহির উদ্দিন স্বপনের মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করা হলেও ফোন রিসিভ করেনি তিনি। বিএনপির একাধিক নেতাদের দাবী জহির উদ্দিন স্বপন কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে ভালো সাজার জন্য এসব নাটক সাজাতে পারেন। বিষয়টি তদন্ত করলেই আসল রহস্য বেড়িয়ে আসবে।

যদিও গৌরনদীর পৌরসভার নিবার্চনকে ঘিরে সকল প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন। কিন্তু রহস্যজনক কারণে বিএনপির এই প্রার্থী কোথাও কোন প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেননি। এমনকি তার প্রচারণা সম্বলিত কোন নির্বাচনী পোস্টারও চোখে পরেনি কারো।


এই বিভাগের আরো সংবাদ

আমাদের ফেসবুক পেজ

Facebook Pagelike Widget