• বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০৭:৪১ পূর্বাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
সংবাদ শিরোনাম
আমীরগঞ্জে সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত ব্যবসায়ী পান্না নারী উত্ত্যক্তকারী সোহাগের মুক্তির দাবীতে থানা ঘেরাও! নির্বাচন বানচাল করতে বিএনপি প্রার্থী হান্নানের নাটক বাটার গলিতে বৃদ্ধার সম্পদ দখলের পায়তারা সন্ত্রাসী নুরী বাহিনীর ইউনিভার্সিটি অব গ্লোবাল ভিলেজ’র চেয়ারম্যান ইমরানের দুর্নীতি ফাঁস বিএম কলেজ ছাত্রদলের আহবায়ক বাবুকে মহানগর ছাত্রদলের সংবর্ধনা সময়ের লড়াকু সাংবাদিক এম. লোকমান হোসাঈন এর জন্মদিন পালিত ‘জিম্মি’ সাংবাদিকদের পাশে থাকবে অনলাইন প্রেস ইউনিটি কারাগারে আসামীকে মারধর, স্বীকার করেলেন জেল সুপার বরিশাল কারাগারে ফাঁসির আসামীকে জেলারের অমানবিক নির্যাতন

আর্মেনিয়া-আজারবাইজান যুদ্ধ বন্ধ মেনে নিতে পারছে না

অন্যায়ের প্রতিবাদ / ৯১ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশকাল ► শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০

ডেস্ক রিপোর্ট : আর্মেনিয়া-আজারবাইজান যুদ্ধ রাশিয়ার মধ্যস্থতায় বন্ধ হওয়ায় ফ্রান্স ক্ষুব্ধ হয়েছে।  যুদ্ধের প্রথম থেকেই আর্মেনিয়ার সরাসরি পক্ষ নেয়া ফ্রান্স মনে করেছিল তুরস্কের সমর্থনে লড়াই করা আজারবাইজান সহজেই পরাজিত হবে।

এদিকে ফ্রান্স থেকে আর্মেনিয়াকে সামরিক সহায়তা দেয়ার কথাও বিভিন্ন গণমাধ্যমে এসেছে। কিন্তু তুর্কি ড্রোন আর ইসরাইল থেকে আমদানিকৃত সমরাস্ত্রে সজ্জিত আজারবাইজান প্রতিপক্ষ আর্মেনিয়াকে নাকানি চুবানি খাইয়েছে। যুদ্ধে দৃশ্যত পরাজয় বরণ করেছে আর্মেনিয়া। যার কারণে আর্মেনিয়ার পরাজয় পরোক্ষভাবে ফ্রান্সেরও পরাজয় হিসেবে ধরে নিচ্ছেন আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকরা।

শুক্রবার ফরাসি ভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে জানানো হয়, নাগারনো-কারাবাখে আর্মেনিয়ার পরাজয়ের পর সেখানে নিজেদের প্রভাব ধরে রাখার বিষয়টিকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছে ফ্রান্স।

এ নিয়ে হতাশ ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ আর্মেনিয়ার একটি প্রতিনিধি দলের উদ্দেশে বলেছেন, ‘আমরা মনে করি এভাবে যুদ্ধবিরতি হওয়া উচিত হয়নি। এতে রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও বিভিন্ন ইস্যুর কোনো সমাধান হয়নি। তুরস্ক-রাশিয়ার আলোচনায় কারাবাখের সব সমস্যা সমাধান হতে পারে না।’

কারাবাখ অঞ্চলে আজারবাইজানের যে কোনো অভিযান চালানোর বিষয়ে প্রথম থেকেই তীব্র আপত্তি জানিয়ে আসছিল ফ্রান্স। বিশেষ করে আজারবাইজানের পক্ষে তুরস্ক সরাসরি সমর্থন করায় বিষয়টিকে ভাবিয়ে তুলেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও ন্যাটোর অন্যতম সদস্য রাষ্ট্র ফ্রান্সকে।


এই বিভাগের আরো সংবাদ

আমাদের ফেসবুক পেজ

Facebook Pagelike Widget